ABN News

অবশেষে মিলল সুবিচার, ফাঁসি হল নির্ভয়ার চার ধর্ষক – খুনির

অবশেষে মিলল সুবিচার, ফাঁসি হল নির্ভয়ার চার ধর্ষক – খুনির

নিজস্ব প্রতিনিধি, দ্যা রেগুলার :- অপরাধের সাত বছর পর, দিল্লির তিহাড় জেলে আজ সকাল হতেই ফাঁসিকাঠে ঝোলানো হল দিল্লির নির্ভয়া কাণ্ডের চার প্রাপ্তবয়স্ক অপরাধীকে। মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হল মুকেশ সিং, বিনয় শর্মা, পবন গুপ্ত এবং অক্ষয় কুমার সিং এর।আজ নির্ভয়াকাণ্ডে ৪ দোষীকে একসঙ্গে ফাঁসি দেওয়া হল। তিহার জেলে ভোর ৪.৩০-র সময় ৪ দোষীর শারীরিক পরীক্ষা হয়। প্রার্থনার জন্য ১০ মিনিট সময় দেওয়া হয়। এরপর তাদের ফাঁসির মঞ্চে নিয়ে যান ৬ নিরাপত্তারক্ষী|

ভোর ৫.৩০- এ ৪ দোষীকে একসঙ্গে ফাঁসি দেওয়া হয়। ফাঁসি দিলেন মেরঠের পবন জল্লাদ। ফাঁসির 30 মিনিট পর তাদের মৃত্যু নিশ্চিত করেন চিকিৎসকরা|এরপর দীনদয়াল উপাধ্যায় হাসপাতালে সকাল ৮টায় ময়নাতদন্ত হয়। ময়নাতদন্তের পর দেহ দেওয়া হবে পরিবারকে।অবশেষে বিচার পেল নির্ভয়া। সাত বছর তিন মাস চারদিনের মাথায় বিচার পেলেন দিল্লির ধর্ষিতা। শুক্রবার সকাল সাড়ে পাঁচটার সময় তিহার জেলে নির্ভয়ার চার ধর্ষক মুকেশ সিংহ, বিনয় শর্মা, পবন গুপ্ত এবং অক্ষয় সিংহর মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হল।

বৃহস্পতিবার ভোররাত পর্যন্ত ফাঁসি রদের জন্যে লড়াই চালিয়ে যায় নির্ভয়ার ধর্ষকরা। কিন্তু শেষ মুহূর্তেও তাঁদের খালি হাতে ফেরায় সুপ্রিম কোর্ট।
নির্ভয়া কাণ্ডে জড়িত ছিল মোট ছয় জন। একজন নাবালক থাকার দরুণ নিস্কৃতি পায়। অন্য এক অপরাধী রাম সিং জেলের ভিতরই আত্মহত্যা করে। স্বাধীনতার পর এই প্রথম তিহার জেলে একসঙ্গে চার অপরাধীর ফাঁসি হলো, ফাঁসির জন্য প্রস্তুত হয়েছিল বিশেষ মঞ্চ| যেখানে বারংবার ফাঁসির আগে চলে মহড়া, শেষমেষ হলো ফাঁসি| 

এই চার অপরাধীর ফাঁসির পর উচ্ছ্বাসে ফেটে পড়ে সারাদেশ| পুরো ফাঁসির বিষয়টির সাক্ষী থাকেন নির্ভয়ার বাবা-মা| এই ফাঁসির পর তারাও যারপরনাই খুশি; নির্ভয়ার মা জানান,দেরিতে হলেও সুবিচার পেল মেয়ে| এই রায়ে খুশি নির্ভয়ার গ্রামের আত্মীয়-স্বজন ও গ্রামবাসীরা|

administrator

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *